অমিতাভের ‘বেগম’ আর নেই

অমিতাভের ‘বেগম’ আর নেই

বলিউড বিগ বি অমিতাভ বচ্চনের ‘বেগম’ ফারুক জাফর আর নেই। ৮৯ বছর বয়সে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করলেন বলিউড সাম্রাজ্যের প্রবীণ এ অভিনয়শিল্পী। ফারুক জাফরের নাতি শাজ আহমেদ তাঁর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন।

সুজিত সরকার পরিচালিত ‘গুলাবো সিতাবো’ ছিল ফারুক জাফরের শেষ ছবি। এ ছবিতে তিনি বলিউড মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চনের বেগমের চরিত্রে অভিনয় করে সবার ভালোবাসা পেয়েছিলেন। এ ছবিতে অভিনয় করেই সেরা সহ–অভিনেত্রী হিসেবে ‘ফিল্মফেয়ার’ পুরস্কার জয় করেছিলেন ফারুক জাফর।

গতকাল সন্ধ্যা সাতটার দিকে লক্ষ্ণৌর গোমতীনগরের বিশেষখণ্ডের বাসায় এ প্রবীণ অভিনেত্রী মারা যান। আজ দুপুরে তাঁকে অ্যাশবাগের এক কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে নাতি শাজ আহমেদ জানান।

‘গুলাবো সিতাবো’ ছবির লেখিকা জুহি চতুর্বেদী ফারুক জাফরকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক আবেগঘন পোস্ট করেছেন। এ পোস্টে তিনি প্রবীণ এ অভিনয়শিল্পীকে শেষবিদায় জানিয়ে লিখেছেন, ‘বেগম চলে গেলেন। ফারুকজি, আপনার তুলনা কেউ ছিল না, আর আগামী দিনে কেউ আসবেও না। আপনাকে অন্তর থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি, কারণ, আপনি আপনার সঙ্গে এক আত্মিক সম্পর্ক গড়ে তোলার সুযোগ করে দিয়েছিলেন। এখন আল্লাহর আরেক দুনিয়ায় আপনি শান্তিতে বসবাস করুন।’


এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন ‘গুলাবো সিতাবো’ তিনি করতে রাজি হয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চনের কারণে

‘গুলাবো সিতাবো’ ছবিতে মূল চরিত্রে অভিনয় করা আয়ুষ্মান খুরানা তাঁর ইনস্টাগ্রাম স্টোরির মাধ্যমে বলিউডের এ অভিনেত্রীর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেছেন। পরিচালক সুজিত সরকার আর জুহি চতুর্বেদী লক্ষ্ণৌতে গিয়ে এ প্রবীণ অভিনয়শিল্পীকে ‘ফাতিমা বেগম’–এর চরিত্রটি বুঝিয়েছিলেন। ফারুকজি এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন যে ‘গুলাবো সিতাবো’

তিনি করতে রাজি হয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চনের কারণে। কারণ, তিনি অমিতাভের ভক্ত। তাই এ বলিউড মেগাস্টারের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ হাতছাড়া করতে চাননি ফারুক জাফর। ‘স্বদেশ’, ‘সিক্রেট সুপারস্টার’, ‘সুলতান’, ‘পিপলি লাইভ’সহ আরও অনেক হিট ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি।


ফারুক জাফর

১৯৮১ সালে রেখা অভিনীত সুপার হিট ছবি ‘উমরাওজান’ দিয়ে ফারুক জাফরের অভিনয় জীবন শুরু। এ ছবিতে তিনি রেখার মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here