আমির খানের সংসার ভাঙ্গার নেপথ্যে কি পরকীয়া !!

0
83
amir khan with fatema sana sheikh

আচমকা একি শোনালেন বলিউডের ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ আমির খান। স্ত্রী কিরণ রাওকে নিয়ে এক যৌথ বিবৃতিতে জানিয়েছেন, তারা ১৫ বছরে দাম্পত্যে ইতি টানছেন। শুধু তাই নয়, এই বিবৃতিতে আমির-কিরণ জানিয়ে দেন, তাদের এই সিদ্ধান্ত একেবারেই আচমকা নয়, বরং বহু আলোচনার পর বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।

নামটা আমির খান সেই জন্যই অন্দরের খবর নিয়েও ভাবছেন ভক্তরা। তাদের বিচ্ছেদের নেপথ্যে কে সেটা বের করার চেষ্টা করছেন অনেকেই। অভিনেত্রী ফাতিমা সানা শেখের সঙ্গে আমিরের সম্পর্কের গুঞ্জন বেশ কিছুদিন ধরেই। অনেকেই মনে করছেন, ফাতিমা সানার কারণেই ১৫ বছরের সংসার জীবনে ইতি টানছেন আমির।

২০১৬ সালে মুক্তি পায় আমিরের দাঙ্গল ছবি। এই ছবিতে সুন্দরী ফাতিমা সানা শেখকে সুযোগ দেন আমির। শোনা যায়, ফাতিমার অডিশন দেখে আমিরই সবুজ সংকেত দিয়েছিলেন। তারপর থেকেই আমির-ফাতিমাকে নিয়ে গুঞ্জন শুরু। বলিউডের নানা পার্টিতে আমিরের সঙ্গে দেখা যায় ফাতিমাকে। আমিরের হাতে হাত দিয়ে মুম্বাইয়ের বহু জায়গায় ঘুরে বেড়াতেও দেখা গেছে ফাতিমাকে।

এ খবর কিরণ রাওয়ের কানেও পৌঁছায়। তবে গুঞ্জন বেড়ে যায়, আমিরের কথাতে আদিত্য চোপড়ার ‘থাগস অব হিন্দুস্তান’ ছবিতে ফাতিমার সুযোগ পাওয়ার পর থেকে। শোনা যায়, বহু প্রযোজক ও পরিচালককে আমির ফোন করে ফাতিমাকে সুযোগ দেওয়ার কথা বলেন। নিন্দুকরা মনে করছেন, ফাতিমার প্রতি আমিরের এই প্রেমই কিরণ রাওয়ের সংসারে আগুন লাগায়, যার ফল বিবাহবিচ্ছেদ।

‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ এ ব্যাপারে মুখ খুলতে চাননি। এক সাক্ষাৎকারে আমির প্রসঙ্গে ফাতিমা অবশ্য বলেন, ‘তাকে আমার ভালো লাগে। আর সেটাই স্বাভাবিক। কিন্তু আমাদের মধ্যে কোনো প্রেমের সম্পর্ক নেই। বরং আমিরকে আমি মেন্টর মনে করি। প্রেমের গুঞ্জন একেবারেই ঠিক নয়।’

এদিকে বিচ্ছেদ হলেও আমির-কিরণ জানিয়েছেন, শুধু ব্যক্তিগত জীবনেই নয়, পেশাদার জীবনেও তাদের পার্টনারশিপ আগের মতোই থাকবে। তাদের ফাউন্ডেশনসহ সব প্রজেক্টে একসঙ্গেই কাজ করবেন।

শনিবার যৌথভাবে দেওয়া বিবৃতিতে তারা লিখেছেন, ‘একসঙ্গে কাটানো ১৫টা বছরে আমরা আজীবনের জন্য অভিজ্ঞতা, আনন্দ ও হাসি ভাগ করে নিয়েছি। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের বিশ্বাস, সম্মান ও ভালোবাসা বেড়েছে। এবার আমরা আমাদের জীবনের একটা নতুন অধ্যায় শুরু করতে চলেছি। সেখানে আমরা স্বামী-স্ত্রী নই, তবে আমরা বাবা-মা থাকব এবং অবশ্যই একে অপরের পরিবারে থাকব।’

আমির-কিরণ ২০০৫ সালের ডিসেম্বরে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। পরে তাদের ঘরে আসে পুত্রসন্তান আজাদ খান। ২০১১ সালে সারোগেসির মাধ্যমে আজাদ জন্মগ্রহণ করে। এর আগে রীনা দত্তকে বিয়ে করেছিলেন আমির।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here