কপিলা এবং মাঝি চরিত্র নিয়ে নতুন ধরনের ওয়েব সিরিজ

0
405

পদ্মানদীর মাঝির জনপ্রিয় দুটি চরিত্র কপিলা এবং কুবেরকে নিয়ে এবার অনলাইন প্লাটফর্মের জন্য নির্মিত হচ্ছে নতুন ধরনের একটি ওয়েব সিরিজ। গতানুগতিক ধারার বাইরে এই ওয়েব সিরিজটি তৈরি করছেন সময়ের জনপ্রিয় নির্মাতা ও নাট্যকার শিমুল সরকার। পদ্মা নদীর মাঝি উপন্যাসের  এবং চলচ্চিত্রের কুবের মাঝি এই দুটি চরিত্র বর্তমান প্রজন্মের কাছে নতুন ভাবে তুলে ধরার প্রয়াস এই ওয়েব সিরিজটি।

এখানে পদ্মা নদীর মাঝি উপন্যাসের কিংবা চলচ্চিত্রের কোন কিছুই থাকবে না বলে জানিয়েছেন নির্মাতা। শুধুমাত্র ওই দুটি চরিত্রের ছায়া অবলম্বনে নতুন প্রজন্মের জন্য নতুন ধরনের একটি কাজ করছেন তিনি।

নতুন এই কাজ নতুন প্রজন্মকে আলোড়িত করবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন। কি থাকছে এখানে এবং কি বা নাম হচ্ছে এই সিরিজের? শিমুল সরকার জানান এই ওয়েব সিরিজের নাম হচ্ছে কপিলা মাঝি। ইতিমধ্যেই গত ২৩ ফেব্রুয়ারি এই সিরিজের টাইটেল সং রিলিজ দেয়া হয়েছে অনলাইন ইউটিউব চ্যানেল লাভ টিভিতে।

এই সিরিজের পর্বেগুলো সাধারণ ওয়েব সিরিজ কিংবা টেলিভিশন নাটকের পর্বের ধরনের সাথে কোন মিল নেই বলে শিমুল সরকার এবং তার টিমের সূত্র থেকে আমরা জানতে পেরেছি। প্রতিটি পর্বের ব্যপ্তি হবে মাত্র ৩ থেকে ৫ মিনিটের ছোট ছোট  গল্প।এখানে শুধুমাত্র মাঝি এবং কপিলার যে শালী দুলাভাই সম্পর্ক, সেই সম্পর্কটাই তাদের কথোপকথন, খুনসুটি এসবের মাঝে উঠে আসবে। সমসাময়িক সমাজের নানা অসংগতির কথা মূলত নতুন প্রজন্মকে তাদের প্রিয় দুটি চরিত্র যা নিয়ে তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তারা নানা ধরনের ট্রল করে থাকেন, নানা ধরনের মিম তৈরি করে থাকেন সেই দুটি চরিত্রের মাধ্যমে সামাজিক নানা ধরনের অসঙ্গতির কথা বলা হবে হাস্যরসের মাধ্যমে। এই প্রজন্মের তরুণ তরুণীরা হাস্যরসের মাধ্যমে পর্বগুলো দেখতে পাবেন এবং শেষে তাদের মধ্যে একটা উপলব্ধির জন্ম নেবে যে সত্যিই সমাজে এ ধরনের ঘটনা ঘটছে কিংবা সমসাময়িক বিষয়ের সঙ্গে প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে তারা বিষয়গুলোকে কানেক্ট করতে পারবেন।

নতুন এই ওয়েব সিরিজটি নির্মাণের পাশাপাশি পুরোদস্তুর অভিনেতা হিসেবে আবির্ভূত হচ্ছেন শিমুল সরকার নিজেই মাঝি চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে। আর কপিলা চরিত্র নির্মাণ করছেন যিনি তিনি বহুদিনের থিয়েটারকর্মী, দক্ষ অভিনেত্র্‌ প্রাচ্যনাটের সাহানা রহমান সুমী। শিমুল সরকার জানান, এই চরিত্রটি করার জন্য অনেককে তিনি ট্রাই করেছেন। মূলত নতুন একজনকে নিয়েই কাজটি করার চিন্তা চেষ্টাটা ব্যর্থ হয়েছে কারণ কপিলা চরিত্রের যে ওজন সেটি  নতুন কারো উপরে দিতে সাহস পাননি শেষ পর্যন্ত। সে কারণেই দক্ষ অভিনেত্রী, থিয়েটারকর্মী সাহানা রহমান সুমীর উপরে তার আস্থা রাখা। দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতা আছে তার, চলচ্চিত্র করেছেন, বহু নাটক করেছেন, এবং অসাধারণ থিয়েটারকর্মী সুমী। সেই আস্থাতেই তাকে নিয়ে শিমুল সরকার এই কাজটি করছেন এবং তিনি আশাবাদী কপিলা মাঝি চরিত্র দুটি নতুনভাবে আবির্ভূত হবে এবং নতুন প্রজন্মের মুখে মুখে থাকবে। সিরিজটির শুটিং হচ্ছে ঢাকার বাইরে গ্রামের বিভিন্ন লোকেশানে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here