কারাগারে ঠোঙা বানাতেন সঞ্জয় দত্ত

কারাগারে ঠোঙা বানাতেন সঞ্জয় দত্ত

বেআইনি অস্ত্র রাখার অভিযোগে কারাগারে ঠাঁই হয়েছিল বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সঞ্জয় দত্তের। জেলে সে সময় কাগজের ঠোঙা তৈরির কাজ দেওয়া হয় তাকে। এই কাজ করেই তিনি ৫০০ টাকা আয় করেন! সম্প্রতি এক টিভি শো’তে নিজেই এই ঘটনা জানান বলিউডের ‘মুন্না ভাই’ সঞ্জয় দত্ত।

আনন্দবাজার ডিজিটাল জানায়, ১৯৯৩ সালের এক মামলায় বেআইনিভাবে নিজের কাছে অস্ত্র রাখার অভিযোগ ছিল সঞ্জয়ের বিরুদ্ধে। ২০০৭ সালে মুম্বাইয়ের টাডা আদালত সেই অপরাধে তাকে কারাদণ্ড দেন। সুপ্রিম কোর্ট সেই রায়ই বহাল রাখায় ২০১৩ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত পুণের ইয়েরওয়াড়া জেলে কেটেছে এই অভিনেতার। বিলাসবহুল জীবন ছেড়ে সঞ্জয় গিয়ে ওঠেন জেলখানার কুঠুরিতে।

বন্দি জীবনেই সঞ্জয়কে কাগজের ঠোঙা তৈরির নির্দেশ দেন জেল কর্তৃপক্ষ। ঠোঙাপ্রতি মিলতো ২০ পয়সা। প্রতিদিন প্রায় ৫০ থেকে ১০০টি ঠোঙা তৈরি করতেন এক সময়ের নামীদামি এই অভিনেতা। টিভিতে সঞ্জয় অকপটে জানান, প্রায় সাড়ে তিন বছরের জেল-জীবনে ঠোঙা তৈরি করেই তিনি রোজগার করেছিলেন প্রায় ৫০০ টাকা। ২০১৬ সালে জেল থেকে ছাড়া পেয়ে সেই টাকা স্ত্রী মান্যতার হাতে তুলে দেন তিনি।

সঞ্জয় বলেন, পণ করেছিলাম জেলের কঠিন দিনগুলো ইতিবাচক মন নিয়ে কাটাবো। ওই ৫০০ টাকার মূল্য আমার কাছে পাঁচ হাজার কোটি টাকার সমান!

২০১৬ সালে নতুন করে সিনেমা জগতে পা রাখেন বলিউডের ‘মুন্নাভাই’। কাজ করছেন বিভিন্ন ছবিতে। এ বছরও তার ঝুলিতে রয়েছে চারটি ছবি। সবক’টিতেই পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করবেন এক সময়ের জনপ্রিয় নায়ক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here