গাড়ি বিতর্কে ক্ষেপে গেলেন পরিমনি

0
80

এবার গাড়ি বিতর্কে বেজায় ক্ষেপেছেন পরিমনি। ক্ষোভটা প্রকাশও করেছেন প্রকাশ্যে সামাজিক মাধ্যমে। বিশেষ করে এই ইন্ডাস্ট্রির মানুষই যখন তাঁর দিকে বাঁকা আঙুল তাক করেছেন তখন তাঁর ক্ষেপে যাবার কারন আছে বৈকি। নেতিবাচক পুরুষতান্ত্রিক এই সমাজে মাঝে মাঝে শিল্পাঙ্গণের কিছু নারীও পুরুষতান্ত্রিকতাকে সমর্থন করেন কখনও বুঝে কখনও না বুঝেই। পরিমনি কত টাকা দামের গাড়ি ব্যবহার করেন সেটা তাঁর ব্যক্তিগত ব্যাপার একেবারেই। যদি সেটা তাঁর আয়ের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ না হয় তবে তা দেখার দ্বায়িত্ব নিশ্চয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার। কিন্তু পরিমনির মত একজন সুপারস্টারকে নাজেহাল করাই যেন উদ্যেশ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই মুহুর্তে বাংলাদেশের সবথেকে বেশি ফ্যান ফলোয়ার রয়েছে পরিমনির। বিদেশী সংস্থাও তাঁর স্বীকৃতি দিয়েছে। তাঁর মতো একজন সেলিব্রিটি কত টাকা দামের গাড়ি হাঁকান সেটি যদি প্রশ্ন তুলেন এমন মানুষজন যাদের সেই উপার্জন সক্ষমতা একেবারেই নেই তখনই বিপত্তিটা ঘটে আসলে। পরিমনিও তাই তাঁর ক্ষোভ পুষে না রেখে ঝেড়েছেন ফেসবুকে। তিনি তাঁর নিজের ভেরিফায়েড পেইজে লিখেছেন যা তা হুবহু তুলে ধরা হলো –

আজ এসব নিয়েও লিখতে হচ্ছে ভাবতে কষ্ট হচ্ছে সত্যি। যখন বড় বড় সম্মানিত শিল্পীরাও পিছে রটানো গসিপ নিয়ে আমার দিকে আঙ্গুল তুলতেও ছাড়লেন না আজ!একবার একটু জেনে নিতেই পারতেন চাইলে।যাইহোক, এসব এর একটু পরিত্রাণ দরকার এবার। *আমার একটি মাত্র হ্যারিয়ার গাড়ি। যেটি ব্যাংক লোনে চলছে। এবং আমি একটি ভাড়া ফ্লাটে থাকি। *আমি আমার আয়ের হিসেব সরকারের কাছে অবশ্যই প্রদান করি।আমি নিয়মিত একজন করদাতা।আমার কোন ১০ কোটি টাকার বাড়ি বা ৫/৪/৩ কোটি (যেমন টা আপনারা বানালেন আরকি) টাকার গাড়িও নেই। আপনারা দোয়া করবেন,আমাকে নিয়ে আপনাদের এই মহান উচ্চ আশা পূরন করবো ইনশাআল্লাহ 😊মিথ্যা বা গুজব ছড়ানোর জন্য আপনারা কতোটুকু জয়ী হলেন ভেবে দেখবেন প্লিজ । – আপনাদের পরীমণি 🙏

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here