চলে গেলেন মঞ্চ জাদুকর পিটার ব্রুক

ব্রুক শেক্‌সপিয়ারের নাটকের চ্যালেঞ্জিং সংস্করণ থেকে শুরু করে মহাভারত পর্যন্ত প্রযোজনা করেছিলেন। ব্রুক বিভিন্ন বিচিত্র জায়গায় নাটক মঞ্চস্থ করেছেন। যার মধ্যে আছে সারা দুনিয়ার বিভিন্ন শহরের জিমনেসিয়াম, নির্জন কারখানা, কোয়ারি, স্কুল ও পুরোনো গ্যাস কারখানায় ইত্যাদি।

১৯৭০ সালের স্ট্রাটফোর্ড প্রযোজনা শেক্‌সপিয়ারের ‘আ মিডসামার নাইটস ড্রিম’ থিয়েটারের ইতিহাসে বিশেষ স্থান দখল করে আছে। মঞ্চের অন্যতম শ্রেষ্ঠ নির্মাতা মনে করা হয় তাঁকে। মঞ্চে সৃজনশীলতা দিয়ে নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়।

সেই ব্রিটিশ নির্মাতা পিটার ব্রুক মারা গেছেন। গত শনিবার প্যারিসে তাঁর মৃত্যু হয়। ১৯৭৪ সাল থেকে তিনি ফ্রান্সে বাস করছিলেন। রোববার তাঁর মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করেন পরিচালকের প্রকাশক। তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৭।

ব্রুক প্রায়ই ঐতিহ্যবাহী নাট্যভবনগুলো এড়িয়ে যেতেন। ‘আমি যেকোনো খালি জায়গা নিতে পারি ও সেটাকে মঞ্চ বলতে পারি,’ ১৯৬৭ সালের প্রখ্যাত বই ‘দ্য এম্পটি স্পেস’–এ লিখেছেন তিনি।

প্রেরণার জন্য অনুসন্ধানের তাগিদ তাঁকে আফ্রিকা, ইরানসহ অনেক দূরে নিয়ে যায়। সৃজনশীলতা ও ইম্প্রোভাইজেশন অন্য মাত্রায় নিয়ে যান। ২০১৭ সালে তাঁর বই ‘টিপ অব দ্য টং’-এ লিখেছেন, ‘প্রতিটি থিয়েটারের সঙ্গে ডাক্তারের সঙ্গে দেখা করার মিল রয়েছে। বাইরে যাওয়ার পথে, প্রবেশের চেয়ে সব সময় ভালো বোধ করা উচিত।’

ব্রুক ১৯২৫ সালে লন্ডনে জন্মগ্রহণ করেন, তাঁর বাবা কোম্পানির পরিচালক, মা বিজ্ঞানী ছিলেন। তিনি ফিল্ম স্টুডিওতে কাজ করার জন্য ১৬ বছর বয়সে স্কুল ছেড়ে যান। তারপর অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে যান ও ইংরেজি এবং বিদেশি ভাষায় ডিগ্রি নেন। ১৯৭০ সালে তিনি ব্রিটেন থেকে প্যারিসে কাজ করার জন্য স্থানান্তরিত হন, ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার অব থিয়েটার রিসার্চ প্রতিষ্ঠা করেন, যা বিভিন্ন দেশের অভিনেতা এবং ডিজাইনারদের একত্র করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here