নেটফ্লিক্স ও যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসে বিজিএমইএ -এর চিঠি

‘দ্য লাস্ট মার্সেনারি’ ছবির পোস্টার

নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাওয়া ‘দ্য লাস্ট মার্সেনারি’ ছবিতে বাংলাদেশি পণ্য নিয়ে আপত্তিকর সংলাপ ব্যবহার করায় দেশে-বিদেশে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। অনেকেই একে বাংলাদেশি পণ্যবিরোধী প্রচারণা বলে মন্তব্য করেছেন। ছবির একটি দৃশ্যে দেখা যায়, একজন অভিনেতা বলছেন, ‘এটা বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট।’ জবাবে অন্যজন বলেন, ‘এটা মেড ইন ফ্রান্স। তবে এটি যদি বাংলাদেশ থেকে আসে, তাহলে আমি শেষ হয়ে যাব।’
সংলাপের বিষয়টি নজরে এলে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডাসহ বিভিন্ন দেশে বসবাসকারী অনেক প্রবাসী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এর প্রতিবাদ জানিয়ে পোস্ট করেছেন। বিস্ময় আর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সভাপতি ফারুক হাসান। এ বিষয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে নেটফ্লিক্সকে চিঠি পাঠিয়েছেন তিনি। বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল আর মিলারকেও অনুলিপি পাঠিয়েছেন।

চিঠিতে ওই ছবি থেকে সংলাপটি সরিয়ে নেওয়ার জন্য নেটফ্লিক্সের কাছে দাবি জানিয়েছেন ফারুক হাসান। তিনি বলেন, ‘এই সংলাপ শুধু বাংলাদেশের তৈরি পোশাকশিল্পকে ক্ষুণ্ণ করেনি; বরং বিশ্বব্যাপী লাখ লাখ ভোক্তাকে অসম্মান করেছে।

“মেড ইন বাংলাদেশ” পোশাক যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের ১৬০টি দেশে রপ্তানি হয়। ছবির ওই সংলাপ বাংলাদেশের ৪০ লাখ পোশাকশ্রমিকের কঠোর পরিশ্রম, নিষ্ঠা, মান ও সময়মতো উৎপাদনের দক্ষতাকে অবমূল্যায়ন করেছে। তাই বিজিএমইএ বাংলাদেশের পোশাকশিল্পের সব মালিক ও শ্রমিকের পক্ষ থেকে, লাস্ট মার্সেনারি ছবির ওই সংলাপের তীব্র প্রতিবাদ করছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here