পেয়ারা বিক্রেতা কিশোরী চাঁদনীর কন্ঠে তাকলাগানো সুর (ভিডিও)

তার নাম চাঁদনী। কতই বা বয়স হবে? ১২/১৩ এর ঘরেই তার বয়সের সীমানা। দুই ভাইয়ের এক বোন চাঁদনী। অভাবের সংসার। বড় ভাই ঢাকায় পাড়ি জমিয়েছে সাধারণ একটা চাকরির জন্য যাতে সংসারে কিছুটা অবদান রাখতে পারে। বাবা নাসিরের পেশা আমড়া, পেয়ারা কেটে মসলা মাখিয়ে বিক্রি করা। রাজশাহীর বাঘায় হযরত শাহদৌলা রঃ এর মাজারে তার ছোট্ট এই ভ্রাম্যমাণ দোকান। সেখানের ছোট দুই ভাই-বোন বাবার ব্যবসাতে সময় দেয়। মাজারে সোম এবং শুক্রবার বেশ ভাল সংখ্যায় দর্শনার্থীদের আনাগোনা হয়। এই দুদিন ভালই বিক্রি হয় তাদের।

দীর্ঘ করোনা মহামারীর লকডাউনে উপার্জনের পথটাও ছিল বন্ধ। চাঁদনীর বাবা নাসির ভাল বাঁশি বাজান। এলাকায় কোনো অনুষ্ঠানে কালেভদ্রে ডাক পড়লে তিনি চলে যান বাঁশি বাজাতে। আর চাঁদনীর রয়েছে ইশ্বর প্রদত্ত দরাজ কণ্ঠ। তার বাউল গানে মন্ত্রমুগ্ধের ন্যায় দর্শক স্রোতারা ভীড় করেন। কখনো দোকানে বসেই আপন সুরে ভেসে যান বাবা মেয়ে দুজনে। বাবা নাসিরের বাঁশি আর চাঁদনীর বাউল সুর ভুলিয়ে দেয় সংসার নামক জগদ্দল পাথরের কষ্টের তীব্রতা। গান কিন্তু তাদের পেশা হয়ে উঠতে পারেনি। তা শুধুই পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে। একটা ভাল সুযোগ চাঁদনীদের দরিদ্র সংসারে এনে দিতে পারে এক সোনার হরিণ। আমরা বিনোদন প্রতিদিন টীম যখন রাজশাহী সফরে কিছুটা অলস সময় পার করছি বাঘা মাজারের দীঘির পাড়ে, তখনই সন্ধান মিলে চাঁদনী এবং তার বাবা নাসিরের। তখন সন্ধ্যা গড়িয়ে রাত নেমেছে প্রকৃতিতে। সিদ্ধান্ত হলো পরদিন সকালে আমরা চাঁদনীর গান শুনবো মাজারে বসেই। সাথে তার বাবা নাসিরের বাঁশি। সে মোতাবেকই পরদিন সকালে আমরা এবার মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে শুনলাম কিশোরী চাঁদনীর গান আর নাসিরের বাঁশি। বিনোদন প্রতিদিন এর দর্শক পাঠকগণ কেন বঞ্চিত হবেন সেখান থেকে? দর্শকদের জন্যই আমরা চাঁদনীর গান ক্যামেরায় ধারন করলাম একেবারেই খালি গলায় তাদের পেয়ারা, আমড়ার দোকানে বসে। চাঁদনীর সন্ধান দেয়ার জন্য বিনোদন প্রতিদিন টীমের কৃতজ্ঞতা স্থানীয় শিশু একাডেমির গানের প্রশিক্ষক শ্যামল কুমার দাসের প্রতি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here