প্রেরণা যোগানো এক শিল্পী প্রবাল চৌধুরী (ভিডিও)

প্রেরণা যোগানো এক শিল্পী প্রবাল চৌধুরী

তার গলা ছিল মধুমাখা। যখন গাইতেন, শ্রোতারা মুগ্ধতায় ডুবে যেতেন। সুরেলা সেই কণ্ঠের জন্য তাকে অনেকে এ দেশের হেমন্ত মুখোপাধ্যায় বলতেন। বলছি অমর কণ্ঠশিল্পী প্রবাল চৌধুরীর কথা।

আজ ২৫ আগস্ট প্রবাল চৌধুরীর জন্মদিন। ১৯৪৭ সালের এই দিনে চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার বিনাজুরি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন এই খ্যাতিমান শিল্পী। তবে তার বেড়ে ওঠা চট্টগ্রামের রহমতগঞ্জে। সাংস্কৃতিক পরিবারে জন্মের সুবাদে ছোট বেলাতেই গানের ভুবনে প্রবেশ করেন তিনি। মায়ের কাছেই তার গানের হাতেখড়ি হয়েছিল।

১৯৬৬ সালে প্রবাল চৌধুরী চট্টগ্রামের কদুক্ষি গার্লস স্কুলের অনুষ্ঠানে গান করেন। সেই অনুষ্ঠানে তার গান নজর কাড়ে সবার। দারুণ প্রশংসিত হন তিনি। এরপরের বছর চট্টগ্রামে গণআন্দোলনে যোগ দেন এই শিল্পী। ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি যুক্ত হন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রে। গান গেয়ে উৎসাহ-অনুপ্রেরণা যুগিয়েছিলেন মুক্তিকামী যোদ্ধাদের। সেই সময় তার কণ্ঠে ‘ভেবো না গো মা তোমার ছেলেরা হারিয়ে গিয়েছে পথে’ এখনো যেন প্রাণের মধ্যে অসামান্য সাহস সঞ্চার করে।

বাংলা চলচ্চিত্রের প্লেব্যাক শিল্পী হিসেবে প্রবাল চৌধুরী একটা বড় অংশ দখল করে আছেন। তার কণ্ঠে বহু গান রয়েছে, যেগুলো শ্রোতাদের মন জয় করে পার করেছে কালের সীমানা।

১৯৭৪ সালে দেশের প্রথম রঙিন সিনেমা ‘বাদশা’তে গেয়েছেন কালজয়ী গান- ‘আরে ও প্রাণের রাজা তুমি যে আমার’। এরপর একেবারে তারকা গায়কের খ্যাতি পেয়ে যান। একের পর এক ভরাটকন্ঠে সুরে সুরে জয় করেন কোটি কোটি দর্শক-শ্রোতার হৃদয়।

‘লোকে যদি মন্দ কয় সেতো নহে পরাজয়’, ‘প্রেমের ওই মেলাতে’, ‘কোথায় যাবো বন্ধু বলো কোথায় আমার ঘর’, ‘চল ছুটে চল মোটর গাড়ি’, ‘ফুলের বাসর ভাঙল  যখন’, ‘আমি ধন্য হয়েছি ওগো ধন্য’, ‘এই জীবন তো একদিন চলতে চলতে থেমে যাবে’, ‘আমি মানুষের মতো বাঁচতে চেয়েছি’-সহ অসংখ্য জনপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন প্রবাল চৌধুরী। 

এছাড়া অডিও জগতেও প্রবাল চৌধুরীর বিচরণ ছিল দাপুটে। একক এবং দ্বৈত মিলে দশটির মতো গানের অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছিল তার।

২০১৫ সালের ১৬ অক্টোবর জীবনের মায়া ত্যাগ করে চিরতরে ওপারে পাড়ি জমান প্রবাল চৌধুরী। ব্যক্তি প্রবাল চৌধুরীর প্রস্থান হয়েছে বটে। কিন্তু শিল্পী প্রবাল চৌধুরী বেঁচে আছেন গানে গানে, প্রাণে প্রাণে। তার অসাধারণ কণ্ঠসমৃদ্ধ গানগুলো যুগ থেকে যুগে ছড়িয়ে যাবে। আর প্রবাল চৌধুরীও হয়ে থাকবেন বাংলা গানের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here