বিষ দিয়ে মারার চেষ্টা হয়েছিল লতা মঙ্গেশকরকে !

বিষ দিয়ে মারার চেষ্টা হয়েছিল লতা মঙ্গেশকরকে !

উপমহাদেশের কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী লতা মঙ্গেশকর। আজ ২৮ সেপ্টেম্বর তিনি ৯২ বছরে পা দিয়েছেন। গোটা ভারত তাকে শ্রদ্ধা জানাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। দীর্ঘ সংগীত জীবনে অনেক ভালো-মন্দ স্মৃতি জড়িয়ে রয়েছে লতা মঙ্গেশকরের। এত নাম-যশ-খ্যাতি-প্রতিপত্তি সহজে পাননি কোকিলকণ্ঠী। যত তার খ্যাতি ছড়িয়েছে, ততই তার শত্রুও বেড়েছে।

তারই জেরে একসময় নাকি লতা মঙ্গেশকরকে খাবারের সঙ্গে বিষ দিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল! এমনটাই জানা গেছে পদ্মা সচদেব নামে এক লেখকের লেখা ‘লতা মঙ্গেশকর: অ্যায়সা কাঁহা সে লাউঁ’ বই থেকে। পরে প্রবাসী সাংবাদিক নাসির মুন্নি কবির এই শিল্পীর একটি সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন। সেখান থেকেও জানা যায়, ১৯৬২ সালে খাবারে বিষ মিশিয়ে তাকে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছিল।

এই খবরের সত্যতায় সিলমোহর দিয়েছিলেন লতা মঙ্গেশকরের বোন ঊষা মঙ্গেশকর। গায়িকার জন্মদিনে নতুন করে আলোচনায় সেই ভয়ংকর দিনের কথা। উষা জানিয়েছিলেন, লতার বয়স তখন ৩৩ বছর। খ্যাতির চূড়ায়। হঠাৎই এক ভোরে তার পেটে প্রচণ্ড ব্যথা। এর পরেই সবুজ বমি করতে থাকেন তিনি। আস্তে আস্তে সারা শরীর অসাড়। হাত-পা নাড়ানোর ক্ষমতাটুকুও নেই। অসহ্য যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন গায়িকা। চিকিৎসককে খবর দিতেই তিনি বাড়িতে এক্সরে’র ব্যবস্থা করেন। ইনজেকশন দিয়ে ঘুম পাড়িয়ে দেন।

পরে এক্সরে থেকে জানা যায়, লতা মঙ্গেশকরের পাকস্থলীতে বিষ রয়েছে। সে বার টানা তিন দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়েছিলেন এই গায়িকা। ১০ দিন পরে অবস্থার উন্নতি হয়। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়ে ওঠেন তিনি। কিন্তু তখন ভীষণ দুর্বল। তখনই চিকিৎসক জানান, তাকে কেউ বিষপ্রয়োগ করে খুন করতে চেয়েছিল। বিষক্রিয়ার প্রভাবে অনেক দিন পর্যন্ত লতা গরম খাবার খেতে পারতেন না। বরফের টুকরো মেশানো তরল খাবার খেতেন তিনি।

তবে কে লতাকে বিষপ্রয়োগ করে মেরে ফেলতে চেয়েছিলেন, তা জানা যায়নি। লেখক পদ্মা তার বইয়ে জানিয়েছেন, ওই ঘটনার পরই লতার রাঁধুনি নাকি পারিশ্রমিক না নিয়ে আচমকা কাজ ছেড়ে চলে যান। তিনি এর আগে বলিউডের বেশ কিছু তারকার বাড়িতে কাজ করেছিলেন।

লতা মঙ্গেশকরের প্রাণসংশয়ের খবর ছড়াতেই টানা বেশ কিছু দিন সন্ধ্যা ৬টায় তার বাড়িতে আসতেন বিখ্যাত গীতিকার মজরুহ সুলতানপুরী। তিনি এসে তার প্রিয় গায়িকার সঙ্গে সময় কাটিয়ে যেতেন। তাকে দেওয়া স্যুপ আগে নিজে চেখে দেখতেন। তার পরে সেটি খেতে দেওয়া হত লতা মঙ্গেশকরকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here