বড়দিনে ভারতের চার ছবি

বড়দিনে ভারতের চার ছবি
‘কেজিএফ: চ্যাপ্টার টু’ ছবিতে ইয়াশ। ছবি: ইনস্টাগ্রাম

ভারতে চারটি বড় বাজেটের ছবি মুক্তি পাবে ক্রিসমাস উপলক্ষে । আল্লু অর্জুনের ‘পুষ্প’, ইয়াশের ‘কেজিএফ ২ ’, আমির খানের ‘লাল সিং চাড্ডা’ ও রণবীর সিংয়ের ‘সার্কাস’। এর মধ্যে ‘লাল সিং চাড্ডা’ ও ‘সার্কাস’ হিন্দি ভাষায় ও অন্য দুটি ছবি মুক্তি পাবে ভারতজুড়ে একাধিক ভাষায়।

 ‘লাল সিং চাড্ডা’ ও ‘কেজিএফ ২’ বড়দিন উপলক্ষে  প্রতিযোগিতায় নামছে সে খবর আগেই প্রকাশ হয়েছে। কয়েক দিন আগে ঠিক করা হয়, আল্লু অর্জুনের ‘পুষ্প’ ক্রিসমাসে মুক্তি পাবে। তিনটি ছবিই বড় বাজেটের। ‘কেজিএফ’ সিনেমার মাধ্যমে রীতিমতো সুপারস্টারে পরিণত হয়েছেন দক্ষিণী অভিনেতা ইয়াশ। সে জন্যই ‘কেজিএফ ২’ নিয়ে ভারতজুড়ে অন্য রকম আগ্রহ। ‘কেজিএফ: চ্যাপ্টার টু’ ছবিতে রকি ভাই চরিত্রে ইয়াশ মুখোমুখি হবেন খলনায়ক অধীরা চরিত্রের সঞ্জয় দত্তের।

৮ জানুয়ারি ইয়াশের জন্মদিন উপলক্ষে ছবিটির একটি টিজার প্রকাশ পায়। এটি এখন পর্যন্ত শুধু ইউটিউবেই দেখা হয়েছে ২০০ মিলিয়নের বেশিবার। সঞ্জয় দত্ত ছাড়াও এতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় অভিনয় করবেন রাভিনা ট্যান্ডন, প্রকাশ রাজ ও শ্রীনিধি শেঠি।প্রতিযোগিতায় ‘পুষ্প’কেই এগিয়ে রাখছেন অনেকে। তেলুগু ছবির সুপারস্টার আল্লু অর্জুন এই ছবিতে অভিনয় করেছেন একজন ট্রাকচালকের চরিত্রে। মালয়ালম ছবির আরেক সুপারস্টার ফাহাদ ফাসিলকে দেখা যাবে খলনায়কের ভূমিকায়!

             ‘পুষ্প’ ছবিতে আল্লু অর্জুন। ছবি: ইনস্টাগ্রাম

ভারতজুড়ে আল্লু অর্জুনের ভক্ত-অনুরাগীর সংখ্যা বিশাল। মালয়ালম ছবি যাঁরা দেখেন, তাঁদের কাছে ফাহাদ ফাসিল বড় তারকা। আল্লু অর্জুনকে নিয়ে তেলুগুর প্রথম সারির পরিচালক সুকুমারের এটি তৃতীয় কাজ। এর আগে ‘আরিয়া’ ও ‘আরিয়া টু’-তে অভিনয় করেছিলেন আল্লু অর্জুন। যেগুলো ব্যাপকভাবে ব্যবসাসফল হয়েছিল। ছবিটি ভিন্ন ভিন্ন পাঁচটি ভাষায় মুক্তি পাবে।

‘লাল সিং চাড্ডা’ ছবিতে আমির খান। ছবি: ইনস্টাগ্রাম

টম হ্যাঙ্কস অভিনীত ‘ফরেস্ট গাম্প’ থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে তৈরি হচ্ছে ‘লাল সিং চাড্ডা’। এতে প্রধান চরিত্রে আছেন আমির খান। সঙ্গে অভিনয় করেছেন কারিনা কাপুর। আর এর যৌথ প্রযোজক আমির খান ও তাঁর সাবেক স্ত্রী কিরণ। আমির খানের ছবি বলে কথা, আগ্রহের কমতি থাকবে না দর্শকদের মধ্যে।

‘সার্কাস’ ছবির সেটে নির্মাতা রোহিত শেঠির সঙ্গে রণবীর সিং। ছবি: ইনস্টাগ্রাম

তবে এই ক্ল্যাশে আন্ডারডগ হিসেবে থাকবে ‘সার্কাস’। রণবীর সিং টানা ‘পদ্মাবত’, ‘সিম্বা’, ‘গাল্লি বয়’- এর মতো হিট ছবি উপহার দিয়েছেন। নির্মাতা রোহিত শেঠির টানা ১০টি সিনেমা ব্যবসাসফল। ২০০৮- এর পর তাঁর আর কোনো ছবি ফ্লপ হয়নি।

চার ছবির এই দৌড়ে কে থাকবে এগিয়ে কে-ই বা পড়বেন পিছিয়ে—তা নিয়েই চলছে তুমুল আলোচনা। অনেকেই ধারণা করছেন শেষ পর্যন্ত আর্থিক ক্ষতির কথা চিন্তা করে প্রতিযোগিতা থেকে সরেও পড়তে পারেন কেউ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here