শুরু হলো বেঙ্গলের সাংস্কৃতিক উৎসব

শুরু হলো বেঙ্গলের সাংস্কৃতিক উৎসব

বাংলাদেশের স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর উদযাপন উপলক্ষে পাঁচ দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসবের আয়োজন করেছে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন।

‘সৃজনে ও শেকড়ে’ প্রতিপাদ্যে রাজধানীর ধানমন্ডির বেঙ্গল শিল্পালয়ে এ আয়োজন গতকাল (১৪ ডিসেম্বর) শুরু হয়েছে। চলবে আগামী ১৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

আয়োজক বেঙ্গল জানায়  সংগীত, চলচ্চিত্র, নৃত্য, কারুশিল্প, চিত্রকলা ও সাহিত্যে বাঙালি সংস্কৃতির এবং সমকালীন জীবনধারার নানা দিক তুলে ধরতে আয়োজনটি করা হয়েছে।  

শুরু হলো বেঙ্গলের সাংস্কৃতিক উৎসব

গতকাল সন্ধ্যা ৬টায় উৎসব উদ্বোধন করেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক। অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘বাংলার সংস্কৃতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শেকড়ে প্রোথিত ছিল। তিনি সবসময় সংস্কৃতির নানা ধারার চর্চাকে উৎসাহিত করতেন। এখন খুব কম প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তি আমাদের দেশীয় মূল্যবোধ ও ভাবনার ধারা বজায় রাখতে কাজ করে যাচ্ছে। তাই আমি বেঙ্গল ফাউন্ডেশন ও ব্র্যাক ব্যাংককে ধন্যবাদ জানাতে চাই এতো সুন্দর একটি আয়োজনের মাধ্যমে আমাদের সংস্কৃতির বিভিন্ন দিক তুলে ধরার জন্য। আমি আশা করি, এ ধরনের উদ্যোগ আমাদের তরুণ প্রজন্মকে বাংলাদেশের ঐতিহ্যকে জানার ও বোঝার প্রতি অনুপ্রাণিত করবে।’ 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাক ব্যাংকের হেড অব এসএমই সৈয়দ আব্দুল মোমেন। অনুষ্ঠানে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি সম্মান প্রদর্শনস্বরূপ ১ মিনিটের নীরবতা পালনের পর আয়োজন শুরু করা হয়। এরপর ষড়জ পঞ্চমের পরিবেশনায় দেশের গান দিয়ে সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন শুরু হয়, তারপর সামিনা হোসেন প্রেমার নির্দেশনায় দলীয় নৃত্য ও খেয়াল পরিবেশন করেন- বেঙ্গল পরম্পরা সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী মিরাজুল জান্নাত সোনিয়া ও সুস্মিতা দেবনাথ শুচি। ছিল শিমুল মুস্তাফার কণ্ঠে আবৃত্তি, বুলবুল ইসলামের কণ্ঠে রবীন্দ্রনাথের গান এবং সর্বশেষ চন্দনা মজুমদারের কণ্ঠে লোকগান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here