২৫ বছরে পূর্ণিমা

২৫ বছরে পূর্ণিমা

সৌন্দর্য, অভিনয় ও ব্যক্তিত্ব দিয়ে দিলারা হানিফ পূর্ণিমা নিজেকে সেরার কাতারে নিয়ে গেছেন ক্যারিয়ার শুরুর খুব অল্প দিনেই। চলচ্চিত্রজগতে পূর্ণিমার পথচলা শুরু হয়েছিল জাকির হোসেন রাজুর ‘এ জীবন তোমার আমার’ ছবির মাধ্যমে। ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯৭ সালে। তখন তিনি ক্লাস নাইনে পড়তেন।

সে হিসাবে ক্যারিয়ারের ২৫ বছর পূর্ণ করলেন পূর্ণিমা। এ পর্যন্ত শতাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। পাশাপাশি ছোট পর্দায়ও কাজ করেছেন। ২৫ বছরের দীর্ঘ এই যাত্রা নিয়ে পূর্ণিমা বলেন, ‘একজন চিত্রনায়িকার জীবনে নিঃসন্দেহে এটা দীর্ঘ জার্নি। এত দিন ধরে দর্শক আমাকে ভালোবাসছেন, সে জন্য তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞ। সামনে আরও ভালো চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে চাই, দর্শকদের হৃদয়ে আরও যুগ যুগ বেঁচে থাকতে চাই।’

ওটিটি প্ল্যাটফর্ম টফিতে ‘স্টার সার্চ’ নামে একটি রিয়েলিটি শো শুরু হচ্ছে। এতে তারিক আনাম খান ও চঞ্চল চৌধুরীর সঙ্গে বিচারক হিসেবে আছেন পূর্ণিমাও। ২৫ বছরে অনেক ধরনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। ঐতিহাসিক গল্পের কিছু ছবিতেও দেখা গেছে তাঁকে। মুক্তিযুদ্ধের গল্প নিয়ে তৈরি ‘মেঘের পরে মেঘ’ ছবিতে কাজ করেছেন। তবে এবারই প্রথম বায়োপিকে অভিনয় করেছেন পূর্ণিমা।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে চলচ্চিত্র ‘চিরঞ্জীব মুজিব’। এতে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিবের চরিত্রে অভিনয় করেছেন পূর্ণিমা। এ সপ্তাহে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি।

চরিত্রটি হয়ে ওঠার জন্য কেমন প্রস্তুতি ছিল? পূর্ণিমা বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কিংবা বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছাকে কাছ থেকে দেখার সৌভাগ্য হয়নি। বই-পুস্তক আর পত্রপত্রিকায় তাঁদের সম্পর্কে অনেক ধারণা পেয়েছি। অভিনয়ে কতটুকু সফল হয়েছি, ছবিটি দেখার পর সেই রায় দেবেন দর্শকেরা। নির্মাতার নির্দেশনা অনুযায়ী চরিত্রটি ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছি। চিরঞ্জীব মুজিব ছবিটি ইতিহাসের একটি অংশ হয়ে থাকবে।’

পূর্ণিমা

এরই মধ্যে বগুড়ার ‘মধুবন’ সিনেমা হলে ‘চিরঞ্জীব মুজিব’ মুক্তি পেয়েছে। ছবির মুক্তি উপলক্ষে বুধবার বগুড়া গিয়েছিলেন পূর্ণিমা। সেখানে অন্য কলাকুশলীর সঙ্গে তিনি ছবির প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন। যদিও মাত্র একটি সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে ‘চিরঞ্জীব মুজিব’। কিন্তু যাঁরাই হলে গিয়ে দেখছেন, তাঁরাই প্রশংসা করছেন। বঙ্গমাতা চরিত্রে অনবদ্য অভিনয়ের জন্য প্রশংসিত হচ্ছেন পূর্ণিমাও।

ছবির প্রথম দিনের প্রথম শো বিনা মূল্যে দেখেছেন শিক্ষার্থীরা। ‘চিরঞ্জীব মুজিব’-এর সংলাপ পরিমার্জন ও সংশোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চিত্রনাট্য করেছেন জুয়েল মাহমুদ। পরিচালনা করেছেন নজরুল ইসলাম। ছবিটি নিবেদন করেছেন শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। বগুড়ার পর পর্যায়ক্রমে সারা দেশে মুক্তি পাবে ছবিটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here